শিরোনাম

নাজিম উদ্দিনের থ্রিলারে সৃজিতের ওয়েব সিরিজ

         

হৈচৈ থেকে প্রকাশিত রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি ওয়েভ সিরিজের পোস্টার

জনপ্রিয় মৌলিক থ্রিলার লেখক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের 'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি' উপন্যাস অবলম্বনের ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করছেন কলকাতার প্রখ্যাত পরিচালক সৃজিত মুখার্জী। 'টিভিওয়ালা মিডিয়া' প্রডাকসনের আট পর্বের থ্রিলারটি সৃজিত তৈরি করছেন ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম 'হৈচৈ'-এর জন্য।

এ বছরের মে মাসে 'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি'র স্যুটিং শুরুর কথা ছিল। সিদ্ধান্ত ছিল, ঢাকার লোকেশনে এবং বেশিরভাগ দেশের কুশীলব নিয়েই তৈরি হবে সিরিজিটি। করোনাভাইরাস মহামারি বদলে দিয়েছে পুরো প্ল্যান। প্রাদুর্ভাব কমলেও দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ এখনো সহজসাধ্য না হওয়ায় ভারতের কুশীলব নিয়ে সে দেশেই শুরু হচ্ছে সিরিজের কাজ। ভারতের মাটিতে ঢাকার লোকেশন ও চরিত্র রূপায়নের এ চ্যালেন্জ বাধ্য হয়েই গ্রহণ করতে হয়েছে সৃজিতকে।

এ প্রসঙ্গে গত রোববার সৃজিত মুখার্জী তার ফেসবুক পেইজে লিখেছেন- 'সত্যি বাংলাদেশে ওখান থেকে কাস্ট দিয়ে গুলি করে মারতে চেয়েছিল। দুর্ভাগ্যবশত কোভিড পরিস্থিতির কারণে, এটা সম্ভব হবে না। যাইহোক স্বাদ অটুট রেখে নতুন সেটিংয়ে মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের মাইন্ডব্লোইং প্রতিভা খাপ খাওয়ানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করব।'

'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি' নির্মাণের সিদ্ধান্ত হয় ২০১৭ সালের শেষের দিকে। কলকাতার টিভিওয়া মিডিয়ার কর্ণধার অমিত গাঙ্গুলি ঢাকায় এসে যোগাযোগ করেন নাজিম উদ্দিনের সঙ্গে। 'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি' নিয়ে ওয়েব সিরিজ নির্মাণের ইচ্ছার কথা বলেন। রাজি হন নাজিম উদ্দিন। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে তাদের মধ্যে চুক্তি হয়। লেখককে দেয়া হয় মোটা অংকের সাইনিং মানি। এরপরেই ঘটে মজার ব্যাপারটি। এপ্রিলে ব্যক্তিগত কাজে ঢাকায় আসেন সৃজিত মুখার্জী। তিনিও প্রস্তাব দেন, 'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি' নিয়ে ওয়েব সিরিজের বানাতে চান। সৃজিত তখনো জানতেন না, ইতোমধ্যে টিভিওয়ালার সঙ্গে চুক্তি হয়ে গেছে নাজিম উদ্দিনের।

চুক্তির কথা জেনে সৃজিত নিজেই যোগাযোগ করেন টিভিওয়ালার সঙ্গে। এরপরই সিদ্ধান্ত হয় টিভিওয়ালার প্রডাকসনে ওয়েব সিরিজটি পরিচালনা করবেন সৃজিত মুখার্জী। ঢাকার লোকেশনে বাংলাদেশের কলাকুশলী নিয়েই সিরিজটি নির্মাণের সব প্রস্তুতিও হয়ে যায়। কিন্ত আকস্মিক করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে তারিখ পিছিয়ে অক্টোবরে ভারতের মাটিতে সে দেশের কুশীলব নিয়েই শুরু হচ্ছে সিরিজের কাজ।

মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন বলেন, 'আমার উপন্যাস নিয়ে সৃজিত মুখার্জীর মতো প্রখ্যাত পরিচালক ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করবেন, এটা আমার জন্য অনেক ভালো লাগার। দেশের জন্যও এটা আশাজাগানিয়া। সৃজিত বলার আগেই টিভিওয়ালার সঙ্গে আমার চুক্তি হয়েছিল। যে কারণে সৃজিত প্রস্তাব দিলে আমার পক্ষে কিছুই করার ছিল না। পরে নিজে থেকেই সৃজিত এতে যুক্ত হওয়ায় আমার ভালো লাগা দ্বিগুণ হয়েছে।

'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি' থ্রিলারটি প্রকাশিত হয় ২০১৫ সালে একযোগে ঢাকা ও কলকাতা থেকে। নাজিম উদ্দিন জানান, এটা ত্রিলজি। দ্বিতীয় খণ্ড 'রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি' প্রকাশিত হয় ২০১৯ সালে। ২০২১ সালে প্রকাশিত হবে তৃতীয় খণ্ড 'রবীন্দ্রনাথ এখানে এসেছিলেন।'

বাংলাদেশের কোনো উপন্যাস-গল্প নিয়ে ভারতে সিনেমা বা ওয়েব সিরিজ নির্মাণের ঘটনা এটাই প্রথম। বাংলা ভাষায় মৌলিক থ্রিলার জনপ্রিয় করার ক্ষেত্রে লেখক ও প্রকাশক হিসেবে মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের ভূমিকা অনন্য। বিদেশি কাহিনী ও ছায়া থেকে সরে হার্ড বয়েলড থ্রিলার লেখক হিসেবে দুই বাংলাতেই তিনি প্রথিকৃত ও সমান জনপ্রিয়। আগের বইয়ের পুনঃপ্রকাশসহ ২০১৫ সাল থেকে তার সব বই ঢাকার সঙ্গে একযোগে প্রকাশিত হচ্ছে কলকাতা থেকে।

নাজিম উদ্দিনের লেখালেখি শুরু হয় ২০০০ সালের দিকে। থ্রিলার শুরুর আগে দ্য ভিঞ্চি কোড, লস্ট সিম্বল, গডফাদার, দ্য সাইলেন্স অব দ্য ল্যাম্বস, ডিসেপশন পয়েন্ট, দ্য কনফেসর, দ্য গার্ল উইথ দ্য ড্রাগন ট্যাটু, ইনফার্নো, দান্তে ক্লাব, অ্যাভেন্জার, দ্য ওডেসা ফাইল, স্লামডগ মিলিয়নেয়ারসহ বিশ্ব সাহিত্যের অনেক উল্লেখযোগ্য বইয়ের অনুবাদ করেন তিনি। ২০১০ সালে প্রথম মৌলিক থ্রিলার নেমেসিস প্রকাশ মাত্রই জনপ্রিয়তা অর্জন করে পাঠক সমাজে। এরপর একে একে লেখেন কন্ট্রাক্ট, নেক্সাস, কনফেশন করাচি, ১৯৫২, কেউ কেউ কথা রাখে, জাল, পেন্ডুলাম, রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি, নাম তার জুলকারনাইন, গভীরতার অন্ধকারে, রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি, দরিয়া-এ-নুর। প্রকাশিত উপন্যাসের সংখ্যা ১৫টি। তার একমাত্র গল্পগ্রন্থের নাম রহস্যের ব্যবচ্ছেদ অথবা হিরণ্ময় নীরবতা।

পাঠকের মন্তব্য
Advertisement
আন্তর্জাতিক

আরো সংবাদ